< ৩৬০ ঘণ্টা পার! শ্বেতপত্র কই? মোদির গ্যারান্টিকে ফের কটাক্ষ অভিষেকের

৩৬০ ঘণ্টা পার! শ্বেতপত্র কই? মোদির গ্যারান্টিকে ফের কটাক্ষ অভিষেকের

৩৬০ ঘণ্টা পার! শ্বেতপত্র কই? মোদির গ্যারান্টিকে ফের কটাক্ষ অভিষেকের

 

একের পর এক ঘণ্টা পেরিয়ে যাচ্ছে, কেটে যাচ্ছে একটার পর একটা দিন। কিন্তু মোদির বিজেপি (BJP ) সরকার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে এখনও শ্বেতপত্র প্রকাশ করতে পারল না। ১৫ দিন (৩৬০ ঘণ্টা) পেরিয়ে যাওয়ার পর ‘মোদি গ্যারান্টির’ অন্তঃসারশূন্যতা নিয়ে তীব্র কটাক্ষ তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের। আজ এক্স হ্যান্ডেলে অভিষেক লেখেন, ‘ বিজেপির রিপোর্ট কার্ডের কথা ভুলে যান। ১৫ দিন অর্থাৎ ৩৬০ ঘণ্টা অতিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও, ২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গে তাদের পরাজয়ের পর থেকে তারা এখনও MGNREGA এবং AWAS PLUS-এ শ্বেতপত্র প্রকাশ করেনি। এই নীরবতা মোদিজির গ্যারান্টির শূন্যতা প্রকাশ করছে। এমনকি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাও তাদের সাহায্য করতে সক্ষম নয় বলেও মোক্ষম খোঁচা দেন অভিষেক।

 

এদিন সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য (Chandrima Bhattacharya) এক্স হ্যান্ডেলে বিজেপিকে কটাক্ষ করে লেখেন, নরেন্দ্র মোদি বা বিজেপির সাহস নেই তৃণমূল সরকারের রিপোর্ট কার্ড চাওয়ার। ২০২১ সালে বাংলাতে তা প্রকাশ করা হয়েছে আবার ২০২৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলার মানুষের কাছে সেই তথ্য তুলে ধরা হবে। কিন্তু এখন বিজেপিকে গত পাঁচ বছরে নিজেদের কাজের খতিয়ান তুলে ধরতে হবে। এরপরই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এই টুইটের রেশ ধরেই খোঁচা দেন বিজেপি তথা নরেন্দ্র মোদি সরকারকে।

মনরেগা ও আবাস যোজনায় কেন্দ্র কত টাকা দিয়েছে বাংলাকে তার শ্বেতপত্র প্রকাশ করার চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ। কিন্তু এখনও পর্যন্ত উত্তর দিতে পারেনি গেরুয়া শিবির। বৃহস্পতিবার, নিজের এক্স হ্যান্ডেলে (X Handle) তীব্র কটাক্ষ করেন অভিষেক। বলেন, বাংলা প্রকৃত সত্য জানার অপেক্ষায় রয়েছে। আগেই উত্তরের জনসভা থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee) বলছেন, ২০২১-এ বাংলায় পরাজিত হওয়ার পরে কেন্দ্র বাংলাকে মনরেগা ও আবাস যোজনায় ১০ পয়সা দিয়েছে কোনও বিজেপি নেতা দেখাতে পারে, রাজনীতি ছেড়ে দেব। বাংলার বিরুদ্ধে কেন্দ্রের বঞ্চনার অভিযোগ তুলে গর্জন করে অভিষেক বলেন, বাংলার সব টাকা বন্ধ করে রেখেছে বিজেপি। বঙ্গের বিজেপি (BJP) নেতারাই টাকা আটকে রাখতে বলেছেন। বিজেপির বহিরাগত নেতারা বাংলা বিরোধী। বাংলাকে লাঞ্ছিত, শেষিত করে রেখেছে। তথ্য দিয়ে জানান, মোদি বলেছেন ৪২ হাজার কোটি টাকা আবাসের জন্য দিয়েছেন। অথচ ১৪ ডিসেম্বর ২২ রাজ্য সরকার লিখেছিল আবাসের টাকা দেওয়া হয়নি। এর পরেই সরাসরি নরেন্দ্র মোদিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে অভিষেক বলেন, “বাংলাকে কত টাকা দিয়েছে, শ্বেতপত্র প্রকাশ করুক বিজেপি।“ তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের কথায়, “কেন্দ্র টাকা দিলে তো ব্যাঙ্কে দিয়েছে, তার ডিটেলস দিক। কত টাকা দিয়েছেন মোদি বাবু, তার রিলিজ অর্ডার দিন”। কিন্তু এখনও পর্যন্ত অভিষেকের চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে পারল না বিজেপি।

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *