< “যেন জামাকাপড় খুলে রেখে চলে যায়”, কু-কথায় ফের বেলাগাম দিলীপ !

“যেন জামাকাপড় খুলে রেখে চলে যায়”, কু-কথায় ফের বেলাগাম দিলীপ !

“যেন জামাকাপড় খুলে রেখে চলে যায়”, কু-কথায় ফের বেলাগাম দিলীপ !

 

ফের বেলাগাম বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ। ভোটের প্রচারে বেরিয়ে ফের কুকথা বর্ধমান-দুর্গাপুরের পদ্ম প্রার্থীর। আজ, শনিবার পূর্ব বর্ধমানের কামনাড়ার গৌর কালীবাড়ি মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করেন দিলীপ ঘোষ। কিন্তু পুজো দেওয়ার সময় মন্দিরের পুরোহিতের কাছে আর্শীবাদ চেয়ে বলেন, “মাকে বলুন, যাতে বর্ধমান-দুর্গাপুরের সম্মান রাখতে পারি। বহিরাগতরা যেন জামাকাপড় খুলে রেখে চলে যায়।” পূজারী অবশ্য দিলীপ ঘোষকে বলেন, “আপনি মাকে বলুন, মাকে বলুন।” কামনাড়ার পর দিলীপ ঘোষ পূর্ব বর্ধমানের ভাতাড়ে সৎখালি কালীবাড়িতেও যান।

 

এর আগে নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে বেলাগাম দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন,”দিদি গোয়ায় গিয়ে বলেন গোয়ার মেয়ে, ত্রিপুরায় গিয়ে বলেন ত্রিপুরার মেয়ে, আগে বাপ তো ঠিক করুন, যার তার মেয়ে হওয়া ঠিক নয়।” দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের পরই তোলপাড় পড়ে যায়। তীব্র নিন্দায় সরব হয় তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূল কংগ্রেস দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে জাতীয় নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়। দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের জেরে অস্বস্তিতে পড়ে যায় দল বিজেপিও। সাফাই বিবৃতি দিতে বাধ্য হয় বিজেপি। দিলীপের বক্তব্যের তীব্র নিন্দা করে দল। দেশের একমাত্র মহিলা নিয়ে করা ‘কুরুচিকর’ মন্তব্যে দল যে দিলীপের পাশে নেই, তা স্পষ্ট করে দেয় বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বও।

 

দিলীপ ঘোষকে ভর্ৎসনা করে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। কার্যত শোকজ করা হয় তাঁকে। ঘরে-বাইরে চাপের মুখে পড়ে তাঁর মন্তব্যের জন্য দুঃখপ্রকাশও করেন দিলীপ ঘোষ। গতকাল, শুক্রবার নির্বাচন কমিশনের শোকজের উত্তর দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। তারপর শনিবার ফের স্বমহিমায় দিলীপ ঘোষ। এবার নাম না করে তৃণমূল প্রার্থী কীর্তি আজাদকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করলেন দিলীপ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *