< প্রতি মাসে মাসে 3000 করে টাকা পাবেন সকলেই, কেন্দ্র সরকারের নতুন একটি প্রকল্প

প্রতি মাসে মাসে 3000 করে টাকা পাবেন সকলেই, কেন্দ্র সরকারের নতুন একটি প্রকল্প

 

কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে বিরাট বড় একটি ঘোষণা করা হয়েছে। নতুন করে একটি প্রকল্পের কথা ঘোষণা করা হয়েছে যেখানে আবেদন জানালেই ছোট থেকে বড় ১৬ বছর বয়স থেকে ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত সকলেই ৩০০০ করে টাকা পেয়ে যাবেন মাসে। নতুন যে প্রকল্পের ঘোষণা করা হলো সেখানে প্রত্যেক নাগরিক অর্থাৎ নারী-পুরুষ ছোট বড় সকলকেই প্রতি মাসে মাসে 3000 টাকা করে পেয়ে যাবেন শুধুমাত্র আবেদন জানালেই। কিভাবে আপনারা এই প্রকল্পের আবেদন জানাবেন সেটি অবশ্যই বিস্তারিতভাবে জানতে হলে খবরটি শেষ পর্যন্ত পড়তে হবে। সমস্ত কিছু বিস্তারিত তথ্য নিচে আলোচনা করা রয়েছে।

 

কেন্দ্র সরকারের নতুন এই প্রকল্পে ইতিমধ্যেই প্রত্যেক নাগরিকদের ৩০০০ করে টাকা দেওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে আবারো নতুন করে আবেদন গ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে তাই যারা যারা এখনো আবেদন করেননি তারা অতি শীঘ্রই আবেদন জানাতে পারেন। এখানে ছোট-বড় নারী পুরুষ সকলেই আবেদন জানালে এবং উপযুক্ত হলে টাকা পেয়ে যাবেন। যাদের বয়স ১৬ বছর থেকে ৫৯ বছরের মধ্যে তারা সকলেই এখানে আবেদন জানিয়ে টাকা পেতে পারে। এখানে আবেদন জানাতে হলে কোন রকম যোগ্যতার দরকার নেই শুধুমাত্র ভারতীয় নাগরিক হলেই টাকা পেয়ে যাবেন। কেন্দ্র সরকার জানিয়েছেন ৪০ কোটি নাগরিক এই প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে যাবেন এবং অনেকেই এই প্রকল্পে আবেদন জানিয়েছেন এবং প্রচুর নাগরিক এখনো এই প্রকল্পে আবেদন জানাননি। পশ্চিমবঙ্গের সকল বাসিন্দারাও এই প্রকল্পের সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। এই প্রকল্পের ব্যাপারে যদি আপনি না জেনে থাকেন তাহলে পরবর্তীকালে আপনি পস্তাবেন।

কেন্দ্র সরকার দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত প্রত্যেকটি পরিবারের জন্য চালু করেছেন ই শ্রম কার্ড, এই কার্ড থাকলেই আপনি এই প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে যাবেন। মাসে মাসে পাবেন তিন হাজার করে টাকা। এই প্রকল্পের জন্য ২০ কোটি জনগণ আবেদন জানিয়েছেন এবং যার মধ্যে ২ কোটি জনগণ এই প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে যাচ্ছেন এবং তবে এখানে ৪০ কোটি জনগণ এই প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে যাবেন তাই ভেবে দেখুন সকলেই এখানে আবেদন জানালে এই প্রকল্পের সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। আপনি যদি এই প্রকল্পের সুবিধা উপভোগ করতে চান তাহলে আজই ই শ্রম কার্ড বানিয়ে ফেলুন। ই শ্রম কার্ড বানালেই আপনি মাসে মাসে এই প্রকল্পের সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

Esharm Card এর গুরুত্ব
ভারতবর্ষে যেমন আধার কার্ডের গুরুত্ব রয়েছে ঠিক তেমনি এই ই শ্রম কার্ডেরও গুরুত্ব রয়েছে। আধার কার্ড যেমন ভারতবর্ষের একটি পরিচয় পত্র ঠিক তেমনি ই শ্রম কার্ড হলো ভারতের অসংগঠিত ক্ষেত্রে একটি কর্মের পরিচয় পত্র। Esharm Card কার্ড ছাড়া কিছুদিন পর কেন্দ্র সরকারের অসংগঠিত ক্ষেত্রের কাজ পাওয়া যাবে না। কাজ করতে হলে অবশ্যই ই শ্রম কার্ডের নাম নথিভুক্ত করতে হবে। এছাড়াও এই প্রকল্পে আবেদন করলে প্রতি মাসে মাসে 3000 করে টাকা পাওয়া যাবে। কেন্দ্র সরকারি সুবিধা পেতে গেলে আপনাকে এই কার্ড বানাতেই হবেকেন্দ্র সরকারি সুবিধা পেতে গেলে আপনাকে এই কার্ড বানাতেই হবে।

কারা কারা এই Esharm Card এর জন্য আবেদন জানাতে পারবেন:

1. ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

2. বয়স হতে হবে ১৬ বছর থেকে ৫৯ বছর পর্যন্ত ।

3. শিক্ষাগত কোনো যোগ্যতা প্রয়োজন নেই, সকলেই আবেদনযোগ্য।

4. পুরুষ মহিলা সকলেই আবেদন করতে পারবেন।

5. যে সমস্ত কর্মীরা ভবিষ্যৎ নীধি (EPF) ও ESI এর সুবিধা উপভোগ করছেন তাঁরা এই কার্ডে নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন না।

আবেদন পদ্ধতি:
এখানে অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন জানাতে হবে। অনলাইনে আবেদন জানানোর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি হলো- http://www.eshram.gov.in/

অনলাইনের মাধ্যমে এখানে রেজিস্ট্রেশন করে আবেদন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হবে এবং আবেদন করার সময় যে সমস্ত প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস দরকার সেগুলোর সঙ্গে রাখতে হবে।

ই-শ্রম কার্ড আবেদন করার জন্য যা যা প্রয়োজন:

১. আবেদনকারীর আধার কার্ড প্রয়োজন

২. আবেদনকারীর একটি মোবাইল নাম্বার থাকতে হবে

৩. এখানে আবেদন জানাতে হলে ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে না থাকলে বানিয়ে নিতে হবে।

ই-শ্রম কার্ড বানালে কি কি সুবিধা পেয়ে যাবেন:

১.এই কার্ড বানানোর থাকলে যার নামে এই কার্ড বানানো থাকবে সে যদি কর্মরত অবস্থায় কোন এক্সিডেন্ট হয় এবং সে যদি পঙ্গু হয়ে যায় তাহলে তার পরিবারকে এক লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়া হবে।

২. এই কার্ড বানানো থাকলে সেই ব্যক্তি যদি কখনো হঠাৎ করে মারা যান তাহলে তার পরিবারকে দু লক্ষ টাকা দেওয়া হবে।

৩. এই কার্ড থাকলে ৩০০০ টাকা করে পাওয়া যাবে মাসে মাসে। যাদের বয়স ৬০ বছর বা ৬০ বছরের বেশি তাদের এই কার্ড থাকলে প্রতি মাসে মাসে তিন হাজার টাকা পেনশন পেয়ে যাবেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *