< স্টিম্যাচের জবাবদিহি চাইতে কমিটি ( body )গঠন করল ফেডারেশন

স্টিম্যাচের জবাবদিহি চাইতে কমিটি ( body )গঠন করল ফেডারেশন

স্টিম্যাচের জবাবদিহি চাইতে কমিটি ( body )গঠন করল ফেডারেশন

 

ইগর স্টিম্যাচকে সরানোর প্রকিয়া শুরু করল অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারশন। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে হারের পর ঘরে-বাইরে চাপের মুখে ভারতীয় ফুটবল দলের কোচের পদ থেকে ইগরকে সরানোর প্রক্রিয়া শুরু করল অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন। তবে চুক্তি থাকায় ক্রোয়েশীয় কোচকে এই মুহূর্তে সরানোর কাজটা খুব কঠিন। আইএম বিজয়নের নেতৃত্বাধীন টেকনিক্যাল কমিটির ( body ) সদস্যরা কার্যত সর্বসম্মতিক্রমে স্টিম্যাচের অপসারণ চাওয়ার পর শুক্রবার জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠক ডেকে পাঁচজনের কমিটি গড়ল ফেডারেশন। কমিটির সদস্যরা সুনীল ছেত্রীদের কোচের কাছে জবাবদিহি চাইবেন। সেইসঙ্গে স্টিম্যাচের সঙ্গে আলোচনা করে তাঁর ভবিষ্যৎ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

 

বৃহস্পতিবার টেকনিক্যাল কমিটির সভায় বিজয়ন, সাবির আলিরা মেনে নেন, স্টিম্যাচকে সরে যাওয়াই উচিত। জাতীয় দল নিয়ে বিভিন্ন সময় ভিন্ন মত পোষণ করায় ক্ষুব্ধ তাঁরা। গত জানুয়ারি থেকে জাতীয় দলের পারফরম্যান্স গ্রাফ পড়ার পিছনে কোচকেই দায়ী করে তাঁকে সরানোর সুপারিশ করে টেকনিক্যাল কমিটি। তা নিয়েই শুক্রবার জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠক ডাকেন ফেডারেশন প্রেসিডেন্ট কল্যাণ চৌবে। মিটিংয়ে যোগ দিয়েছিলেন ১৪জন সিনিয়র মেম্বার। বিভিন্ন সদস্যের পরামর্শ, সুপারিশ মেনে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। নতুন কমিটি স্টিম্যাচের সঙ্গে আলোচনা করবেন এবং ব্যর্থতা নিয়ে কোচের কাছে ব্যাখ্যাও চাইবেন।

 

চুক্তি থাকায় জাতীয় দলের কোচকে অবশ্য এখনই ছেঁটে ফেলা সম্ভব নয়। ৬ জুন কলকাতায় কুয়েত ম্যাচ হারলে ভারতের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের তৃতীয় রাউন্ডে ওঠা সম্ভব নয়। তখন নিজের কথামতো স্টিম্যাচ তখন পদত্যাগ করবেন ধরে নেওয়া যায়। কিন্তু জিতে সুনীলরা তৃতীয় রাউন্ডে চলে গেলে চুক্তির শর্ত অনুযায়ী স্টিম্যাচের মেয়াদ আরও দু’বছর বেড়ে ২০২৬-এর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হবে। তাই জুনের আগে কোচকে সরালে মোটা অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে ফেডারেশনকে। তবে এআইএফএফ-এর উপর চাপ বাড়ছে। সাই-এর তরফে ফুটবল দলের পারফরম্যান্স নিয়মিত খতিয়ে দেখে সাই। নিষ্ফলা কোচকে কেন বয়ে বেড়ানো হচ্ছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তারা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *